নজরুল চর্চার অভাবে এখন ফরিদপুরে নজরুলের স্মৃতি হারিয়ে যেতে বসেছে

ফরিদপুর প্রতিনিধি : জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ধূমকেতু -নজরুল চর্চা কেন্দ্র এর উদ্যোগে আজ ১১ জৈষ্ঠ ২৫ মে ফরিদপুর নজরুল চত্বরে কবির স্মৃতির প্রতি ফুলের শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ধূমকেতু – নজরুল চর্চা কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও ফরিদপুর প্রেস ক্লাব এর সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ ফয়েজ আহমেদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ফরিদপুর জেলা সমবায় ইউনিয়ন এর সেক্রেটারী এডভোকেট রইচ উদ্দিন সোহেল,ধূমকেতু – নজরুল চর্চা কেন্দ্রের ফরিদপুর শাখার সহ-সভাপতি খন্দকার কামাল হোসেন ও প্রচার সম্পাদক মেহেদী হাসান।
এ সময় ফেসবুক লাইভে বক্তব্য রাখেন ধূমকেতু – নজরুল চর্চা কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও ফরিদপুর প্রেস ক্লাব এর সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ ফয়েজ আহমেদ।
ফার্স্ট বিডি নিউজ কে নজরুল ভক্ত শেখ ফয়েজ আহমেদ বলেন, নজরুল শুধুই কবি ছিলেন না, তিনি ছিলেন বাঙ্গালীর আত্মা এবং স্বাধীন বাংলা প্রতিষ্ঠার রূপকার। আর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন তার স্বপ্ন বাস্তবায়নের রূপকার। ১৯৭২ সালের ২৪ মে স্বাধীন বাংলাদেশে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কবিকে বাংলাদেশে এনে জাতীয় কবির মর্যদা প্রদান করেন । কিন্তু দু:খ জনক হলেও সত্য যে,আমাদের দেশে এখনও প্রকৃত ভাবে নজরুল চেতনা ও নজরুল চর্চা গড়ে উঠেনি। এ জন্য সরকার কে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি আরও বলেন, নজরুলের সাথে ফরিদপুর এর মানুষের গভীর সম্পর্ক ছিল,নজরুল চর্চার অভাবে এখন ফরিদপুরে নজরুলের স্মৃতি হারিয়ে যেতে বসেছে । কবি নজরুল হলটি বেদখল হয়ে তার মর্যাদা হারিয়েছে। আমি সরকারের নিকট অনুরোধ করবো নজরুল চর্চা বৃদ্ধি করা হলে দেশের স্বাধীনতা ও যুব সমাজের স্বক্রিয়তা ঠিক থাকবে। তাই নজরুল চর্চা আন্দোলন ছড়িয়ে দিতে নজরুল ইন্সটিটিউট এর কেন্দ্র ফরিদপুরে স্থাপনসহ সারাদেশে কেন্দ্র স্থাপনের দাবী জানাচ্ছি আজকের এই বিশেষ দিনে। ঈদের দিনে নজরুলের জন্মদিন হওয়ায় ধূমকেতুর পক্ষ থেকে সকলকে নজরুলীয় ঈদ শুভেচ্ছা জানাই।