ফরিদপুর মুন্সীবাজারে সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলায় আহত-৪,আটক-৩

ফরিদপুর অফিস : ফরিদপুর পৌরসভার বর্ধিত ২৭নং ওয়াড এর মুন্সি বাজার (ট্রানজিট পয়েন্ট ) এলাকায় দীর্ঘদিন নিরব সন্ত্রাস ও মাদক চলে আসছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল প্রকাশ্য দিবালোকে দেশীয়-অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে বিলমামুদপুর মল্লিকপুর গ্রামের সেলিম,হানিফ ও রাজ্জাক এর নেতৃত্বে মুন্সীবাজারে পূর্বপরিকল্পিত ভাবে হামলা চালিতে মারাত্মক ভাবে আহত করেছে ৪ জন কে । এদের হাত থেকে নারীরাও মুক্তি পাইনি। আহতরা হলেন মো: নজরুল মল্ল্কি,রাশেদুল,তাসলিমা ও আমেনা বেগম। আহত ২ জনকে গুরুত্বর হওয়ায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এর ট্রমা সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, এলাকায় উক্ত মাদক বানিজ্যে জড়িত একটি চক্রকে মদদ ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত থেকে হামলাকারীরা এলাকায় প্রভাব ও আধিপত্য বিস্তার করে রেখেছেছিল দীর্ঘদিন। হামলাকারীদের একজন ক্ষমতাশীন দলের ওয়াড পর্যায়ের নেতা বলে সূত্র জানায়। যদিও ফরিদপুর সদরে সন্ত্রাসী বাহিনী নেই বললেই চলে , এরা দলের নাম ভাঙ্গীয়ে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ঠ করে আসছে বলে অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি এলকায় বেড়িবাধে ঘরস্থাপনে চাদা আদায়,ত্রাণ বিতরণে অনিয়মসহ রুবেল ব্যাপারীকে কুপিয়ে হাত কাটা প্রচেষ্টার অভিযোগ ও তাদের বিরুদ্ধে মামলা মাথায় রয়েছে ।
এরই ধারাবাহিকতায় ঘটল গতকাল এর এই ঘটনা । যদিও পুলিশ ও কঠোর অভিযান চালিয়ে ঘটনার প্রায় ২৪ ঘন্টার মধ্যেই চিহিৃতদের একাংশকে আটক করেছে। এবিষয়ে ফরিদপুর কোতয়ালী থানায় মামলা হয়েছে ১৩ জন কে অভিযুক্ত করে । আসামীরা প্রায় সকলে এলাকা ছেড়ে বলে জানা গেছে । আসামাী পক্ষ বাদী পক্ষকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য চাপ দিয়েছে বলে জানায় সুত্র ।

এ বিষয়ে কোতয়ালী থানার সাব-ইন্সপেক্টর প্রবীর কুমার এর সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,আমরা ৩ জনকে আটক করেছি। বাকীদের বিরুদ্ধে আইন মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে ।
এলাকার জনৈক একজন আমাদের জানান, আমরা আতংকের মাঝে রয়েছি। যে কোন সময় হামলাকারীরা আমাদের উপর আবার হামলা করতে পারে। তাই প্রশাসন যেন আমাাদের গ্রামে ও বাজারে পুলিশ মোতায়েন করে। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। #