ফরিদপুরে আ.লীগ নেতাসহ আটক- ৯, অস্ত্র,টাকা মাদক উদ্ধার

ফরিদপুর অফিস: ফরিদপুরে আওয়ামী লীগ নেতাসহ ৯ জনকে আটক করেছে পুলিশ।এ সময় আটককৃতদের কাছ থেকে বিপুল পরিমান অবৈধ অস্ত্র, দেশী-বিদেশী টাকা,মদ ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।
বিষয়ে আজ সোমবার বেলা সাড়ে ১২টায় পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলন থেকে পুলিশ সুপার আলিমুজ্জামান জানান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহার বাড়ীতে গত ১৬ই মে হামলার ঘটনা ঘটে। এ সব ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়।
এই মামলায় ফরিদপুর শহর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও জেলা বাস মালিক গ্রুপের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন বরকত, ব্যবসায়ী মো: ইমতিয়াজ হাসান রুবেল, রেজাউল করিম বিপুল, পৌর কাউন্সিলর মাহফুজুর রহমান মামুন, নারীনেত্রী ইয়াসমিন সুলতানা বন্যা,এনামুল হক জনি, অমিয় সরকার, জাহিদ খান, নারায়ন চক্রবর্তীকে আটক করা হয়।

গতকাল রবিবার রাতে শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয় বলে সংবাদ সম্মেলন থেকে জানানো হয়। আটককৃতদের মধ্যে সাজ্জাদ হোসেন বরকত, ইমতিয়াজ হাসান রুবেল ও রেজাউল করিম বিপুলের কাছ থেকে ৫টি পিস্তল, ৯১ রাউন্ড গুলি, ২টি শর্টগান, ১৮০টি কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। তাদের হেফাজতে থাকা ৩ হাজার ইউএস ডলার, ২৯ লাখ নগদ টাকা, ৯৮ হাজার ভারতীয় রুপি, ১২শ বস্তায় ৬০ হাজার কেজি সরকারী ত্রাণের চাল, ৬ বোতল বিদেশী মদ, ৬৫টি পিস ইয়াবা, ৫টি পাসপোর্ট উদ্ধার করা হয়।
মামলার অপর আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানানো হয় সংবাদ সম্মেলন থেকে। আটককৃতদের মধ্যে বরকত, রুবেল ও বিপুলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়। অন্য আসামীদের ৭ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়। আদালত ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে।
এদিকে, সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও ইমতিয়াজ হাসান রুবেলসহ ৯ জনের গ্রেফতারের খবরে এবং তাদের বিচার ও শাস্তি দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে আওয়ামী লীগের একাংশ। #